সর্বশেষ আপডেট :December 6, 2019
Ovinews24

অন্যরকম স্বপ্ন নিয়ে নারায়ণগঞ্জের পূর্ণিমা বৃষ্টি

December 3, 2019

বিনোদন প্রতিবেদক : নতুনদের মধ্যে ভালো ভালো কাজ করে খুউব অল্প সময়ে দর্শক এবং নিমার্তাদের দৃষ্টি কাড়তে সক্ষম হয়েছেন নারায়ণগঞ্জের মেয়ে পূর্ণিমা বৃষ্টি। প্রায় চল্লিশটি বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করার পাশাপাশি অনেক নাটকে এবং মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেও প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। এরইমধ্যে তিনটি সিনেমার কাজও শেষ করেছেন পূর্ণিমা বৃষ্টি। তার অভিনীত প্রথম সিনেমা প্রসূণ রহমান পরিচালিত ‘ঢাকা ড্রিম’। এই সিনেমা দশটি ভিন্ন গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে। দশটি গল্পের একটি গল্পের কেন্দ্রীয় চরিত্র পারুল। সেই পারুল চরিত্রেই অভিনয় করেছেন পূর্ণিমা বৃষ্টি। এছাড়াও আন্তর্জাতিক উৎসবে প্রদর্শনের জন্য আরো দুটি সিনেমাতে অভিনয় করেছেন তিনি। একটি মধুসূদন মিহির চক্রবর্তী’র ‘কলঙ্ক’ এবং অন্যটি অনিক রহমানের ‘বুমেরাং’। পূর্ণিমা বৃষ্টি অনেক বেশি আশা ‘ঢাকা ড্রিম’র পারুল চরিত্রটি নিয়ে। এই চরিত্রটিকে প্রাণবন্ত করে তোলার জন্য ময়মনসিংহকে যেতে হয়েছিলো তাকে শুটিং-এর জন্য। সেখানে অনেক কষ্ট করে শ্রম দিয়ে শুটিং করেছেন তিনি। পূর্ণিমা বৃষ্টি একজন ভালো অভিনেত্রী হিসেবে দর্শকের ভালোবাসা পেতে চান। তিনি বলেন,‘ প্রথমত আমি একজন ভালো মানুষ হতে চাই। যেহেতু বলা যায় অভিনয়ই এখন আমার পেশা, তাই একজন ভালো অভিনেত্রী হতে চাই আমি যেন দর্শক আমার অভিনয়ের প্রশংসা করেন, দর্শকের ভালোবাসা নিয়েই আগামীর পথে এগিয়ে যেতে চাই। আমার ভীষণ ভালোলাগে শ্রদ্ধেয় সুবর্ণা মুস্তাফা, জয়া আহসান এবং বিপাশা হায়াতের অভিনয়। ভালোলাগে সালমান শাহ, শাকিব খান ও অমিতাভ বচ্চনের অভিনয়। সারা জীবন অভিনয়ই করে যেতে চাই এবং জীবনের শেষ বয়সে শ্রদ্ধেয় দিলারা জামানের মতো একজন ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন শিল্পীতে নিজেকে পরিণত করতে চাই।’ পূর্ণিমা বৃষ্টির জন্ম ২৭ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জের খানপুর হাসপাতালে। নারায়ণগঞ্জের তুলারাম কলেজ থেকেই তিনি বাংলা সাহিতে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন।

২০১৪ সালে ‘রঙ’র আয়োজনে ‘সারদ সাজে রঙ্গের দিদি’ প্রতিযোগিতায় সৌমিক দাসের হাত ধরে মিডিয়াতে পূর্ণিমা বৃষ্টির অভিষেক হয়। এই প্রতিযোগিতায় তিনি প্রথম হয়েছিলেন। পূর্ণিমা বৃষ্টি প্রসঙ্গে সৌমিক দাস বলেন,‘ আমি বা আমরা শুধু একটি সুযোগ দিয়ে থাকি। বাকীটা যা করার তার নিজেকেই নিজের মেধা দিয়েই করে নিতে হয়। পূর্ণিমা বৃষ্টির ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে।’ পূর্ণিমা নাটকেও নিয়মিত অভিনয় করছেন। বর্তমানে তিনি মোস্তফা কামাল রাজের নতুন ধারাবাহিক ‘বিবাহ অ্যাটাক’-এ নিয়মিত কাজ করছেন। এছাড়াও তিনি অভিনয় করছেন ফরিদুল হাসানের ‘সুলতান ভাই’ ধারাবাহিকে। এরইমধ্যে বেলাল খানের তিনটি গানের মিউজিক ভিডিওতে মডেল হয়েছেন। যারমধ্যে প্রকাশিত ‘কী করে ভূলি তোমায়’ গানটি সতেরো লক্ষরও বেশি ভিউায়ার্স উপভোগ করেছেন। শরাফ আহমেদ জীবনের নির্দেশনায় প্রথম ‘বার্জার’র বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেন। এরপর আরো প্রায় চল্লিশটি বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন। পূর্ণিমা বৃষ্টি ছোট্টবেলায় গানও শিখেছেন। মা শিপ্রা রায়ের কাছে তার গানে হাতেখড়ি। এরপর ছোট্টবেলায় নারায়ণগঞ্জের কিশোর মল্লিকের কাছে বেশকিছুদিন গানে তালিম নিয়েছিলেন। পূর্ণিমার বাবা বিজয় রায়। নতুনদের মধ্যে পূর্ণিমা বৃষ্টির কাজগুলো দর্শকের কাছে বেশ গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছে, আসছে আলোচনাতেও।
ছবি : রিফাত

Leave a Reply

এটাও পছন্দ করতে পারেন

যুবরাজ খালেদ খানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন রুনা খান

শামীম-ফারিণের ‘জবান’-এ প্রশংসিত হচ্ছে লুইপা’র গান

মিলাদ বড় ভূঁইয়ার নির্দেশনায় টয়া

আগামী বই মেলায় আসছে শানু’র তিনটি বই

‘আগুনের পরশমনি’ থেকে আজকের হোসনে আরা পুতুল

অভিনয়ের চেয়ে নির্মাণেই আগ্রহ বেশি রাজিব সালেহীনের

Copy link
Powered by Social Snap