সর্বশেষ আপডেট :May 27, 2020
Ovinews24

উপমহাদেশে প্রথম নজরুলের গানে একই পরিবারের তিন সদস্য

May 18, 2020

অভি মঈনুদ্দীন : উপমহাদেশের প্রখ্যাত নজরুল ও উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতশিল্পী ওস্তাদ ইয়াকুব আলী খানের সুযোগ্য দুই উত্তরসূরী এই প্রজন্মের শ্রোতাপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী ইউসুফ আহমেদ খান ও ইমতিয়াজ আহমেদ খান। বাবার কাছেই দু’জন তালিম নিয়ে নিজেদেরকে শুদ্ধ সুরের সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করছেন এখনো। ছোট ভাই ইমতিয়াজকে নিয়ে সবসময়ই স্বপ্ন দেখতেন বড় ভাই ইউসুফ। তার একটি অন্যরকম অভিষেকের স্বপ্নই ছিলো ইউসুফের। যেভাবে ভাবনা এগিয়ে যাচ্ছিলো, ঠিক যেন তাই হলো। নজরুল সঙ্গীতের ইতিহাসে সবচেয়ে জনপ্রিয় গান ‘মোর প্রিয়া হবে এসো রানী’ গানটির একটি বিশেষ পরিবেশনা নিয়েই বর্ণাঢ্য অভিষেক হতে যাচ্ছে ইমতিয়াজের। এই পরিবেশনায় ইমতিয়াজের প্রথমবার কণ্ঠ দেবার পাশাপাশি তার অভিজ্ঞতার পালকে যুক্ত হয়েছে তারই বাবা ওস্তাদ ইয়াকুব আলী খানের সঙ্গে একই আয়োজনে গাইবার এবং গানের শেষ দিকে যুক্ত হয়েছেন বড় ভাই ইউসুফও। সেদিক থেকে বলা যায়, নজরুল সংগীত এর ইতিহাসে একই পরিবারের দুই প্রজন্মের তিন সদস্যের মিলনে আয়োজন করে ‘মোর প্রিয়া হবে এসো রানী’ গানে পরিবেশনা উপমহাদেশে এই প্রথম। এই আয়োজনটি প্রযোজনা ও পরিচালনা করেছে টিম সাউণ্ডহ্যাকার। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন শরীফ সুমন গুড্ডির। নিজের ছোট ছেলের এমন বর্ণাঢ্য অভিষেক প্রসঙ্গে ওস্তাদ ইয়াকুব আলী খান বলেন,‘ বড়ছেলেকে যেভাবে আমি গানে নিয়ে এসেছি, ঠিক তেমনি ভাবে তার বড়ভাই সাথে এবার ছোট ছেলেও এই জগতে অভিষেক হতে যাচ্ছে, তালিমের শেষ নেই, তার সামনে জীবন পড়ে রয়েছে, তালিম ধরে রাখলে অবশ্যই ভাল করবে বলে আমার বিশ্বাস। কাজী নজরুল যে কতটা আধুনিক ছিলেন যা তার কাজেই প্রকাশ পায়, তারুণ্য তার কাছে আজন্ম প্রশ্রয় এবং অনুপ্রেরণা পেয়েছে। নিজেরা যতই আধুনিকতার কথা বলিনা কেন, গানে বা সাহিত্য চর্চায় আমরা বড়রা অনেক ক্ষেত্রেই নতুনতর আধুনিক আয়োজন বা তাদের প্রচেষ্টার সাধুবাদ জানাতে পারিনা, আমি মনে করি সাউ-হ্যাকার খুব যত্নের সাথে অসাধারণ কাজ করেছে। তাদেরকে আমার আশির্বাদ জানাই।’ ইমতিয়াজ বলেন,‘ বাবার কাছে উচ্চাঙ্গ এবং নজরুল সংগীত এর তালিম নিচ্ছি ছোটবেলা থেকেই, বাবা মা ভাইয়াকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিতেও দেখেছি, সঙ্গেও গিয়েছি অনেকবার, তাই মনের কোণে ছোট্ট একটা স্বপ্ন ছিলই, কিন্তু সেটা এভাবে পুরণ হবে ভাবিনি, আমি সত্যি আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞ, সবার কাছে দোয়া চাই যেন বাবা মার সম্মান রাখতে পারি।’ ইউসুফ বলেন,‘ বন্ধুত্বের এক অনন্য নিদর্শনের সৃষ্টি হলো মোর প্রিয়া হবে দিয়ে’ সাউণ্ড হ্যাকার এবং ওয়াই বিটসের মধ্যে। ইমতিয়াজের এই ঐতিহাসিক অভিষেক যেন সত্যিই অবিস্মরণীয় হয়ে থাকে সেই দোয়াই করছি।’ আগামী ২৪ মে রাতে জাতীয় কবি নজরুলের ১২১’তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষ্যে ‘ওয়াই বিটস’ ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ পাবে। উল্লেখ্য , গানটিতে বিভিন্ন ধাপে যারা সহযোগিতা করেছেন তারা হচ্ছেন গীটারে সৈয়দ রাসেল, বেইজ গীটারে নয়ন, কী বোর্ডে রিজভী অদিত, সাউণ্ড ডিজাইন করেছেন শরীফ সুমন গুড্ডি ও রিজভী অদিত, মিক্স অ্যা- মাস্টার জাভেদ আহমেদ কিসলু। ইউসুফ আহমেদ খান জানান ‘সাউণ্ডহ্যাকার’ তার ছোট ভাইয়ের বর্ণাঢ্য এই অভিষেক নিজেদের অর্থায়নে উপহার হিসেবে দিয়েছে। ইউসুফ আহমেদ’র নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে ‘ওয়াই বিটস’র জন্য এটা অনেক বড় এক প্রাপ্তি।
ছবি : গোলাম সাব্বির

Leave a Reply

এটাও পছন্দ করতে পারেন

দুলাভাই দুলাভাই’খ্যাত রেশমা সুইটির গানের গল্প

অনন্যা’র আরাধনায় কিংবদন্তী শিল্পীরা

চাঁদ রাতে মমতাজের লাইভ শো ‘হাতে লয়ে প্রেমের পুতুল’

মোল্লা জালালের কথা, সুরে ঈদের গানে ইবরার টিপু, সাব্বির ও বিন্দুকনা

মন ছুঁয়ে যাওয়া শিরোনামে নতুন নতুন গানে স্মরণ

আজাদ রহমানকে উৎসর্গ করে অধরার উদ্যোগে ‘এইতো সেই পৃথিবী’

Copy link
Powered by Social Snap