সর্বশেষ আপডেট :February 20, 2020
Ovinews24

‘বশির আহমেদ সম্মাননা’য় ভূষিত কিংবদন্তী’রা

November 18, 2019

অভি মঈনুদ্দীন : মুক্তিযদ্ধের পূর্বে ও পরে বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনকে সমৃদ্ধ করার মধ্যদিয়ে বিশ্বের মধ্যে বাংলা গানকে পরিচিত করে তোলার ক্ষেত্রে যাদের অবদান রয়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম একজন হলেন বশির আহমেদ। প্রয়াত বরেণ্য এই সঙ্গীতশিল্পীর সুযোগ্য দুই উত্তরসূরী সঙ্গীতশিল্পী হোমায়রা বশির ও রাজা বশিরের উদ্যোগে গেলো ১৭ নভেম্বর রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো ‘বশির আহমেদ সম্মাননা ২০১৯’ প্রদান ও বশির আহমেদ’র ৮০’তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন। বশির আহমেদ’র গান, তার প্রাপ্তি ও তার সঙ্গীতে তার সাধনাকে আগামী প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দিতেই তার দুই সন্তান হোমায়রা বশির ও রাজা বশির ‘বশির আহমেদ সম্মাননা ২০১৯’ এই বছর থেকে চালু করেছেন। যথারীতি সেদিন সন্ধ্যা সাগে সাতটায় অধরা জাহানের উপস্থাপনায় প্রথমেই কোরআন তেলাওয়াতের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে নানান পর্যায়ে বশির আহমেদ’কে নিয়ে স্মৃতি চারণ করেন একুশে পদকপ্রাপ্ত বরেণ্য গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার, সঙ্গীত পরিচালক আজাদ রহমান, সঙ্গীতশিল্পী খুরশীদ আলম, সঙ্গীত পরিচালক শেখ সাদী খান, বশির আহমেদ’র শীষ্য বহুবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী কনকচাঁপা’সহ আরো অনেকে। বক্তারা তাদের আলোচনায় বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনে বশির আহমেদ’র বিরাট অবদান সম্পর্কে নিখুঁতভাবে সবার উদ্দেশ্যে বিস্তারিত তুলে ধরেন। আমন্ত্রিত অতিথিরা আগ্রহ নিয়ে তা শুনেন। আলোচনার এক পর্যায়ে রাজা’র সুর সঙ্গীতে বশির আহমেদ’কে নিয়ে কনক চাঁপা, হোমায়রা ও রাজার গাওয়া ‘তোমার উপমা তুমি’ গানটি উপভোগ করেন দর্শক। গানটির পরপরই মঞ্চে উঠে আসেন কনকচাঁপা। তাকে উত্তরীয় পরিয়ে দেবার পর তিনি তার গুরু সম্পর্কে তার স্মৃতিচারনামূলক অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন। এর পরপরই গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা রাজা’র সুর সঙ্গীতে হোমায়রা ও রাজার গাওয়া ‘পাপা’ গানটি উপভোগ করেন দর্শক।

বশির আহমেদ সম্মাননা হাতে শহীদুল্লাহ ফরায়েজী, ফেরদৌসী রহমান ও শেখ সাদী খান
পিছনে দাঁড়ানো রাজা বশির, হোমায়রা বশির ও অধরা জাহান

প্রথমবারের মতো ‘বশির আহমেদ সম্মাননা ২০১৯’ যারা পেলেন তারা হলেন ফেরদৌসী রহমান, শেখ সাদী খান, শহীদুল্লাহ ফরায়েজী, মুস্তফা কামাল সৈয়দ, নাসির আহমেদ ও চন্দন দত্ত। ফেরদৌসী রহমান’কে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়। তিনি এই সম্মাননা প্রাপ্তি পেয়ে বলেন,‘ জীবনে অনেক পুরস্কার পেয়েছি আমি। কিন্তু কোন বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী’র নামে এবারই প্রথম এমন সম্মাননায় ভূষিত হলাম। ভীষণ ভালোলাগছে আমার। বশির ভাইয়ের দুই যোগ্য সন্তান হোমায়রা ও রাজা’র উদ্যোগে এই সম্মাননার মধ্যদিয়ে তাদের বাবা বেঁচে থাকবেন। হোমায়রা ও রাজা বুঝিয়ে দিলো যে চাইলেই সন্তানেরা বাবা মায়ের জন্য অনেক কিছুই করতে পারে। আমরা আশা করতেই পারি আমাদের সন্তানেরাও যেন আমাদের চলে যাবার পর আমাদেরকে যেন এভাবে বাঁচিয়ে রাখার উদ্যোগ নেয়।’ হোমায়রা বশির ও রাজা বশির বলেন,‘ যারা কষ্ট করে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছেন তাদের প্রত্যেকের কাছে আমরা আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। সবার অংশগ্রহণেই আব্বাকে নিয়ে অনুষ্ঠান সফল হয়েছে, সত্যিই আমরা সবার কাছে ঋনী হয়ে গেলাম। আমাদের বাবা মায়ের জন্য প্রাণভরে দোয়া করবেন যেন তারা বেহেস্তবাসী হন।’ হোমায়রা জানান এখন থেকে প্রতি বছরই এই সম্মাননা প্রদান অব্যাহত রাখার চেষ্টা করা হবে। উল্লেখ্য গতকাল ছিলো বশির আহমেদ’র আশি’তম জন্মদিন।
ছবি : আলিফ হোসেন রিফাত

Leave a Reply

এটাও পছন্দ করতে পারেন

বাবা হলেন ফটোসাংবাদিক মোহসীন আহমেদ কাওছার

একই প্রতিষ্ঠানের দশটি শো’তে শান্তা জাহান

অভিনয়ে নয় উপস্থাপনাতেই প্রতিষ্ঠা চান নীল হুরেজাহান

নিইউয়র্কে মেয়ের মা বাবা হলেন রুমানা-এলেন

নতুন দুই বিজ্ঞাপনে বিদ্যা সিনহা মিম

আফতাবের নির্দেশনায় বিজ্ঞাপনে রিয়াজ, ফেরদৌস ও তারিন

Copy link
Powered by Social Snap