সর্বশেষ আপডেট :March 30, 2020
Ovinews24

সাফল্যের তিন দশকে ড্রামার এম ডি মানিক…

October 5, 2019

বিনোদন প্রতিবেদক : বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনে একজন নিবেদিত এবং পেশাদার ড্রামার হিসেবে সুপরিচিত এম ডি মানিক। বাংলাদেশের কিংবদন্তী শিল্পী থেকে শুরু এই প্রজন্মের অনেক সঙ্গীতশিল্পীর সঙ্গেই স্টেজ শো’তে ড্রামস বাজিয়ে তাদের শো’কে শ্রোতা দর্শকের কাছে গ্রহণযোগ্য করে তুলেছেন। সবার প্রিয় সেই এম ডি মানিকের আজ জন্মদিন। জন্মদিনের শুরুটা স্ত্রী ইনা ও একমাত্র ছেলে শাফিনের সঙ্গে শুরু হলেও আজকের দিনটা পুরোটাই কাটবে তার কর্ম ব্যস্ততায়। যেহেতু মানিক একজন সফল ড্রামার, তাই ব্যস্ততার মধ্যদিয়েই কাটবে তার জন্মদিন, এমনটাই স্বাভাবিক। আজ দুপুরে রাজধানীর উত্তরা ক্লাবে সঙ্গীতশিল্পী ইউসুফ আহমেদ খান ও জিনিয়া জাফরিন লুইপার সঙ্গে তিনি ড্রামস বাজাবেন। জন্মদিনের সময়টা তাই গানে গানেই কাটবে মানিকের। নিজের জন্মদিন প্রসঙ্গে মানিক বলেন, ‘সত্যি বলতে কী আমার কিছু প্রিয় প্রিয় মানুষ আছে তাদের সঙ্গেই মূলত কাটছে জন্মদিন। তবে পেশাগত কাজ থেকেও বিরত নই আজ। যে কারণে আজ শো’ও রাখতে হয়েছে। সবার কাছে দোয়া চাই যেন সবসময় ভালো থাকি, সুস্থ থাকি। আজীবন যেন একজন ড্রামার হিসেবে কাজ করে যেতে পারি।’ এম ডি মানিক তার নিজের আজকের এই অবস্থানের পিছনে অনায়াসে স্বীকার করেন সাত্তার, চন্দন, পার্থ মজুমদার, পিন্টু ও প্রিন্সের কথা। তাদের সবার আন্তরিক সহযোগিতাতেই মানিকের আজকের এই অবস্থানে আসা। তাই জীবন চলার পথে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায়ের পাশাপাশি বাবা মায়ের জন্য দোয়া আর যারা তার পাশে সবসময় ছিলেন তাদের জন্য শুভকামনা করেন সবসময়ই। মানিক নিজেকে অতি সাধারণ একজন মানুষ হিসেবেই বিবেচনা করেন। আজ থেকে ত্রিশ বছর আগে একজন ড্রামার হিসেবেই তার যাত্রা শুরু হয়েছিলো। রাজধানীর শাহবাগে দিলরুবা খানের একটি অনুষ্ঠানে একজন ড্রামার হিসেবে মানিকের যাত্রা শুরু হয়। এরপর থেকে তিনি শাহনাজ রহমতুল্লাহ, রুনা লায়লা, সাবিনা ইয়াসমিন, সৈয়দ আব্দুল হাদী, সুবীর নন্দী’সহ আরো অনেকের সঙ্গেই ড্রামস বাজিয়েছেন। কিংবদন্তী সঙ্গীত শিল্পীদের সঙ্গে একজন যন্ত্রশিল্পী হিসেবে কাজ করার সৌভাগ্য সবার হয়না। মানিকের তা হয়েছে। আর তাতেই যেন তিনি গর্বিত।

মানিক বলেন,‘ বাংলাদেশে টেলিভিশনে আমি বরেণ্য সঙ্গীত পরিচালক সমর দাসের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পাই। এটা আমার জন্য আমার শিল্পী জীবনের শুরতেই পাওয়া ছিলো অনেক বড় অর্জন। সত্যিই অনেক বড় সৌভাগ্য আমার।’ এম ডি মানিকের ইচ্ছে আছে একজন সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে কাজ করার। এরইমধ্যে টুকটাক কাজ তিনি শুরুও করেছেন। ইচ্ছে আছে সিনিয়র এবং জুনিয়র শিল্পীদের দিয়ে কিছু গান করার জন্য। যাতে একসময় তিনি না থাকলেও এই গানের মাঝেই যেন তার শুভাকাঙ্খীরা তাকে খুঁজে পান। কুমিল্লা শহরের সন্তান মানিকের বাবা আব্দুল মালেক ও মা জুলেখা বেগম। তার ছোট দুই ভাইও এই পেশায় সম্পৃক্ত। ছোট ভাই হানিফ একজন ড্রামার এবং হাসান একজন কী বোর্ডিস্ট। দুই ভাইকে নিয়েও গর্বিত মানিক। মানিক তার জন্মদিনে তার শুভাকাঙ্খীদের কাছ থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছায় পুলকিত হচ্ছেন। মানিক বলেন,‘ সবাই আমাকে এতো ভালোবাসেন তা নতুন করে আবারো উপলদ্ধি করছি। সবার এই ভালোবাসার মাঝেই আমি বেঁচে থাকতে চাই।’
ছবি : গোলাম সাব্বির

Leave a Reply

এটাও পছন্দ করতে পারেন

‘আমার মনে’ একসঙ্গে প্রথম ইউসুফ-ঝিলিক

জামাল হোসেনের কথায় করোনা নিয়ে আসিফের ‘আসবে বিজয়’

পুতুলের হলোনা তাকে কাছে পাওয়া

পণ্ডিত অজয় চক্রবর্ত্তীর কাছে তালিম নিচ্ছেন অনন্যা

বঙ্গবন্ধু’কে গরীব সঞ্জয়ের শ্রদ্ধাঞ্জলি ‘বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ’

মারুফের কথায় ইউসুফের সুরে গাইলেন সৈয়দ আব্দুল হাদী

Copy link
Powered by Social Snap