সর্বশেষ আপডেট :July 2, 2020
Ovinews24

নতুন নতুন গানে গ্রহনযোগ্যতা বাড়বে ঐশী’র…

June 25, 2020

অভি মঈনুদ্দীন : দু’বছর আগের একটি ঘটনা। ঐশীর অজান্তেই ঐশীর খালি গলায় গাওয়া একটি গান দেশের শীর্ষস্থানীয় একটি প্রযোজনা সংস্থার মালিকের কাছে পৌঁছায়। ঐশীর অসাধারণ গায়কী শুনে তিনি মুগ্ধ হন। তাকে দিয়ে একটি গান গাওয়ানোর কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত সেখানে চট্টগ্রামের একজন শিল্পী স্থলাভিষিক্ত হন। এটা ঘটনাটা ঐশীর অজান্তেই ঘটেছিলো। কিন্তু পরবর্তীতে ঐশী জানার পরেও ঐশী একটুও আফসোস করেননি। কারণ ঐশী বিশ্বাস করেন তার অধ্যবসায় এবং চেষ্টায় তিনি একদিন দেশের সঙ্গীতাঙ্গনে নিজের দৃঢ় একটি অবস্থান করে নিতে পারবেন। যে বাবার মন এখনো খারাপ মেয়েকে ডাক্তার না বানাতে পেরে সেই বাবাকে গানের ভুবনের শীর্ষস্থানে নিজেকে পৌঁছে দিয়ে বাবার বুকটা ভরিয়ে দিতে চান ঐশী। বিশ্ব না হোক বাবাকে নিয়ে সারা বাংলার দর্শনীয় স্থানগুলো ঘুরতে চান। ঐশী তার স্বপ্নের পথেই হেঁটে চলেছেন। আর তাই এখন নতুন নতুন গানের পরিকল্পনা নিয়েই তিনি মাঠে নেমেছেন। এরইমধ্যে ‘তোর আকাশে’ শিরোনামের একটি গানের কাজ প্রায় শেষ। গানটি লিখেছেন তোফায়েল হোসেন এবং সুর সঙ্গীত করেছেন মুনতাসির তুষার। শিগগিরই এটি একটি ইউটিউব চ্যানেলে আসবে। বৃষ্টি নিয়ে একটি গানের কাজ শেষ করেছেন। গানটি লিখেছেন রাজীব হাসান, সুর সঙ্গীত করেছেন মুনতাসির তুষার। দুটি গানের কথা এবং সুর যেকোন শ্রেণীর শ্রোতা দর্শকের মুগ্ধ করার মতো। ঐশী খুব কম কাজ করেন, কিন্তু যা করেন খুউব মানসম্পন্ন। কারণ ঐশী পড়াশুনা করছেন গানেরই উপর। রাজধানীর জগন্নাথ কলেজে শাস্ত্রীয় সঙ্গীতে অনার্স করছেন তিনি, ফাইনাল ইয়ারের ছাত্রী তিনি। পড়াশুনায় তার ফলাফল সন্তোষজনক সবার কাছে। বাংলাদেশের বিশিষ্ট রবীন্দ্র সঙ্গীতশিল্পী অণিমা রায় ঐশীরই বিভাগের শিক্ষক। অণিমা রায় বলেন,‘ ঐশী এমনই একজন সঙ্গীতশিল্পী যার কন্ঠে সুর আর আবেগের সমন্বয়টাই শ্রোতা দর্শককে মুগ্ধ করে। এমন অনেক শিল্পী আছেন যাদের গানে নিজস্ব একটা আলাদা সত্ত্বা থাকে। ঐশীর মধ্যে তা আছে। আমার বিশ্বাস আগামীদিনে ঐশী তার গায়কী দিয়ে শ্রোতা দর্শকের মন আরো জয় করে নিবে সেইসাথে আমাদের বিভাগের, আমাদের শিক্ষকদের, তার পরিবারের সম্মান বয়ে আনবে বিষদভাবে। আমরা তাকে নিয়ে আরো বেশি গর্ব করতে পারবো।’ নিজের সঙ্গীত জীবন নিয়ে ঐশী বলেন,‘ গানই আমার জীবন, জীবনটাই আমার কাছে গান। বাবার প্রবল ইচ্ছে ছিলো আমি ডাক্তার হবার। কিন্তু হতে পারিনি। আমি আমার ভালোলাগাটাকেই প্রাধান্য দিয়েছি। যে কারণে আমি বিশ^াস করি একদিন আমি আমার লক্ষ্যে পৌঁছাবোই ইনশাআল্লাহ এবং আমার বিশ্বাস আমার বাবা তখন আরো বেশি খুশী হবেন।’ ২০১৭ সালে চ্যানেলআই সেরাকন্ঠ প্রতিযোগিতায় ঐশী চ্যাম্পিয়ন হন। সুনমামগঞ্জের মেয়ে ঐশীর গানে হাতেখড়ির তার নেত্রকোনার মোহনগঞ্জের খালা আবিদুন্নাহার আবিদার কাছে। পরবর্তীতে জামালগঞ্জের গৌরাঙ্গ চন্দ্র বনিক, সুনামগঞ্জের দেবদাস চৌধুরী রঞ্জন এবং বর্তমানে আচার্য্য রেজওয়ান আলী লাভলুর কাছে শাস্ত্রী সঙ্গীতে তালিম নিচ্ছেন। ঐশী জানান আরো কিছু এক্সক্লুসিভ গানের আয়োজন হচ্ছে, আর সেই গানগুলো প্রকাশ হলেই ঐশীর আগামীর পথ আরো সুগম হবে।
ছবি : মোহসীন আহমেদ কাওছার

Leave a Reply

এটাও পছন্দ করতে পারেন

ঝিলিকের প্রশংসায় রুনা লায়লা, ঝিলিকের কাছে এটি অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তির সমান…

অ্যাণ্ড্রু কিশোরের ফেরার প্রার্থনায় আলম খান…

রুনা লায়লা’র প্রশংসাই জীবনের বড় প্রাপ্তি তিন্নি’র…

আর কোন কথা নয়’র জন্য ‌দুই বাংলায় সাড়া পাচ্ছেন রূপঙ্কর-সুমনা

নিজের পথে ছন্দে ফিরেছেন দিঠি আনোয়ার…

অভিজাত পরিবারের এক জাদুকর গীটারিস্ট…

Copy link
Powered by Social Snap