সর্বশেষ আপডেট :July 2, 2020
Ovinews24

১১ বছর পর অবশেষে সিনেমা’য় মুনিম…

June 28, 2020

অভি মঈনুদ্দীন : ফিল্মি দুনিয়ার মানুষ হবেন তিনি, এমনটাই ছিলো স্বপ্ন। আর সেই স্বপ্ন পূরণের পর দারুণ উচ্ছসিত হাস্যোজ্জ্বল মুনিম এহসান। মিডিয়াতে পথচলার প্রায় এক যুগ অর্থাৎ ১১ বছর পর নিজের স্বপ্নের পথে হেঁটে চলেছেন এই সময়ের একজন তরুণ মডেল ও অভিনেতা মুনিম এহসান। নিজের স্বপ্নের এই পথচলার যাত্রাটা যদিও তার বাবা মা দেখে যেতে পারেননি তারপরও নিজের মধ্যে এক অন্যরকম সুখ ভাবনায় আছেন মুনিম। সৈকত নাসির পরিচালিত ‘ক্যাসিনা’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন মুনিম। সিনেমাটিতে একজন নেপালী’র চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। আপাতত এতোটুকুই বলতে পারছেন তিনি। কিন্তু সিনেমাটি নিয়ে ভীষণ উচ্ছসিত মুনিম। একেতো এটি তার প্রথম সিনেমা, দ্বিতীয়ত ক্যাসিনো’ সিনেমার গল্প, নির্মাণশৈলী এবং দীর্ঘ ১১ বছর পর সিনেমাতে অভিনয় সবমিলিয়েই মুনিম ‘ক্যাসিনো’ নিয়ে ভীষণ আশাবাদী। মুনিম বলেন,‘ আমার দীর্ঘদিনের ইচ্ছে ছিলো সিনেমাতে অভিনয় করার। নানান কারণে আসলে ব্যাট বলে হয়ে উঠছিলোনা। কিন্তু অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ক্যাসিনো সিনেমায় কাজ করেছি। সবার মতো করেই হয়তো বলতে হচ্ছে যে সিনেমাটির গল্প, নির্মাণশৈলী এবং সিনেমাতে যারা অভিনয় করেছেন তারা প্রত্যেকেই ভালো করেছেন। কিন্তু এটা সত্যিই বলার জন্য বলা নয়, ক্যাসিনো সবমিলিয়ে একটি অসাধারণ সিনেমা হয়েছে। আমার কথার সাথে দর্শকের আশার সমন্বয় ঘটবে এটা আমি নিশ্চিত বলতে পারি। কারণ ক্যাসিনো একটি সময়োপযোগী সিনেমা এবং সৈকত নাসির তার মেধা দিয়ে আন্তরিকতা দিয়ে সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন। যে কারণে সিনেমাটি হয়ে উঠেছি একটি আন্তর্জাতিক মানের সিনেমা। তাই অনেক বেশি আশাবাদী আমি সিনেমাটি নিয়ে। সিনেমাটি নির্মাণের পর যদি দর্শকের কাছ থেকে আশানুরূপ সাড়া পাই আমি তাহলে অবশ্যই সিনেমাতে নিয়মিত হবো আমি। আর ফ্যাশন দুনিয়ায় একটি বিপ্লব ঘটাতে চাই আমি, যেন আমার পরবর্তী জেনারেশন আমার পথ ধরেই এই পথে আসতে অনুপ্রাণিত হয়। আমার বিশ্বাস আমার অধ্যবসায়, আমার সাধনা একদিন আমার স্বপ্ন পূরণ করবেই পরবর্তী জেনারেশনকে ঘিরে। ’ লক্ষীপুরের দত্তপাড়ার ছেলে মুনিম।

রাজধানীর বিএফ শাহীন কলেজে পড়ান সময়ই মূলত ফ্যাশন শো’র প্রতি আগ্রহ বেড়ে যায় কলেজে গ্রুমিং করাতে আসা খ্যাতনামা মডেলদের দেখে। এরপর সেভেন আপ, এয়ারটেল’সহ আরো বেশকিছু প্রতিষ্ঠানের প্রমোসনাল মডেল হিসেবে কাজ শুরু করেন। রাহাত রহমানের নির্দেশনায় সাফা কবির ও মুনিম ‘প্রাণ পিনাট বার’র বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে আলোচনায় আসেন মুনিম। ‘ফেসবুকিং পারেনা’ এটা ছিলো এই বিজ্ঞাপনের আলোচিত সংলাপ। এরপর প্রাণ, আরএফএল’র আরো অনেক বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেন। ফেরদৌস হাসানের নির্দেশনায় ‘মায়া’ নাটকে তিনি প্রথম অভিনয় করেন। পরবর্তীতে একই পরিচালকের আরো ছয়টি নাটকে অভিনয় করেন। তার অভিনীত প্রথম ওয়েব সিরিজ এহসান কবিরের নির্দেশনায় সাবিলা নূরের বিপরীতে ‘ওয়েডিং বেলস’। মুনিম এহসান বর্তমানে দেশের প্রতিথযশা ফ্যাশন হাউজ ‘স্টাইলসেল’, ‘ভোগ বাই প্রিন্স’, ‘ইয়েলো’,‘ এপেক্স’, ‘ওকাল্ড’ ,‘ট্রেণ্ড’সহ আরো বেশকিছু প্রতিষ্ঠানের ফ্যাশন ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করছেন। মূলত প্রতিষ্ঠানগুলোর ক্যাম্পেইনের কাজটি তার মাধ্যমেই হয়ে থাকে। মুনিমের বাবা অধ্যক্ষ মোহাম্মদ সাদেক ছিলেন লক্ষীপুর দত্তপাড়া ডিগ্রী কলেজের প্রতিষ্ঠাতা। তার বাবা ২০১০ সালে এবং মা মমতাজ বেগম ২০১৭ সালে ইন্তেকাল করেন। ছয় ভাইয়ের মধ্যে তিনিই সবার ছোট। মুনিম একটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটি থেকে বিবিএ সম্পন্ন করেছেন। রাজধানীর বিএফ শাহীন কলেজ থেকে মুনিম এসএসসি এবং এইচএসসি সম্পন্ন করেন। মুনিমের প্রিয় নায়ক সালমান শাহ, প্রিয় নায়িকা মৌসুমী, প্রিয় টিভি অভিনেতা অপূর্ব, অভিনেত্রী নূসরাত ইমরোজ তিশা। মিডিয়ায় তার প্রিয় বন্ধু মিথিলা, নাবিলা ও মাহি, তারা তার পরিবারের সদস্য’র মতোই। নাহিদ, তৌহিদ, সুমন, সায়েম আর ইমনের আদরের ছোট ভাই মুমিনের আগামীদিনগুলো হোক সাফল্যেও, এমনটাই প্রত্যাশা তার শুভাকাঙ্খীদের।
ছবি : আলিফ রিফাত

Leave a Reply

এটাও পছন্দ করতে পারেন

একজন অভিনেতা হবারই চেষ্টা করেছি অভিনয়ে চার যুগ পেরিয়ে বললেন আলমগীর…

যে কারণে বদলে গিয়েছিলো নায়ক রাজের ‘সন্ধি’র নায়িকা

‘বউ বাড়ি’র বড় বউ হয়ে শুটিং-এ ফিরছেন শাহনূর

বদলে যাচ্ছে প্রযুক্তি, এখনই বিকল্প না ভাবলে বিপদ!

নিজের অভিনীত চলচ্চিত্র দিয়েই মিমের ইউটিউব চ্যানেলের যাত্রা শুরু

পঁচিশ বছর পর পপি…

Copy link
Powered by Social Snap